Fiverr এর কিছু গুরুত্বর্পূণ নিয়ম কানুন ,না মানলে সাসপেন্ড হতে পারেন। Spandada-11

ফাইভার হল একটা অনলাইন মার্কেটপ্লেস। এখানে সেলার কোন একটি কাজের জন্য গিগ তৈরী করে। ওই গিগটি যদি কোন বায়ারের দরকার

হয় তাহলে গিগটা সে কিনবে। এভাবে ফাইভারে গিগ তৈরী করে আয় করা যায়। ফাইভার হলো একটি ইন্টারন্যাশনাল মার্কেটপ্লেস। এখানে

সার্ভিসেস কিনা বেচা হয়। প্রত্যেক সার্ভিসের মূল্য কমপক্ষে ৫ ডলার। যেহেতু এটি একটি অনলাইন মার্কেটপ্লেস সেহেতু এখানে অনলাইন এবং

প্রযুক্তি ভিত্তিক বিভিন্ন সেবা বিক্রি করা হয়।

অর্ডার ক্যান্সেলেশন এড়ানোর কিছু টিপস :

১.আপনি গিগের ডেলিভারিতে কি কি দিবেন সেটার একটা সুষ্পষ্ট ধারণা আপনার গিগের ডিস্ক্রিপশনে উল্লেখ করতে হবে।

২.বায়ারকে বিভিন্ন বোনাস দিতে পারেন কারন বোনাস পেতে সবাই পছন্দ করে। আপনার গিগ অনুযায়ী আপনি নির্ধারণ করতে পারেন আপনি

কি বোনাস দিবেন।

৩.কোনো কারণে বায়ার সন্তুষ্ট না হলে রিভিশন দিয়ে তা ঠিক করে দেয়ার চেষ্টা করতে হবে।

৪.বায়ারের অন্যায় আবেদনকে কখনো গ্রহন করবেন না, প্রয়োজন হলে সাপোর্টে যোগাযোগ করতে হবে।

৫.সাপোর্টে যোগাযোগের ক্ষেত্রে অল্প কথায় গুছিয়ে আপনার অভিযোগ করতে হবে, প্রমান হিসেবে স্ক্রিণশট দিবেন অবশ্যই। স্ক্রিণশটের

ইম্পরট্যান্ট জায়গাগুলো মার্ক করে দিবেন।

৬.গিগে যা প্রমিজ করবেন এক্সেক্টলি সেটা বা তার থেকে বেশি দেয়ার চেষ্টা করবেন।

৭.নতুন বায়ারের সাথে কাজ করার আগে তার সাথে কথা বলে কনফার্ম হয়ে নিন আসলে তিনি কি চাচ্ছেন।

৮.আপনি এ মোতাবেক কাজ করলে আমার বিশ্বাস আপনার কোন সমস্যা হবে না Fiverr রে কাজ করতে। কারন Fiverr একটি ভালো

মার্কেটপ্লেস। তা্ই আপনি যদি Fiverr রে কাজ করতে চান, আপনাকে কিছু গুরুত্বর্পূণ নিয়ম কানুন মেনে চলতে হয়। না মানলে আপনি

সাসপেন্ড হতে পারেন।

একাউন্ট সম্পর্কে :

১) ১টা IP বা কম্পিউটার / ল্যাপটপ দিয়ে একটা এ্যাকাউন্ট করা যাবে।একাধিক এ্যাকাউন্ট ব্যবহার করলে সবগুলোই ব্যান হওয়ার সম্ভাবনা আছে! 

২.) WIFI দিয়ে মোবাইল APP চালাতে পারবেন ।

৩) কম্পিউটার / ল্যাপটপ যে এ্যাকাউন্ট ব্যবহার করছেন সেটা মোবাইল APP এ ব্যবহার করতে পারবেন. কিন্তু একাধিক মোবাইল এ

ব্যবহার না করে ভালো.

৪) একই WIFI এ একাধিক এ্যাকাউন্ট ব্যবহার করবেন না । ডিভাইস আলাদা হলেও একটা WIFI এর আন্ডার এ একটা এ্যাকাউন্টই থাকা ভালো।

কারণ হলো আপনি একাধিক ডিভাইস ব্যবহার করলেও। IP ১টাই থাকবে এতে আপনার এ্যাকাউন্ট ডিসএবল হওয়ার চান্স থাকবে।

ডিসএবল একাউন্ট: 

১) এ্যাকাউন্ট ডিসএবল হলে , উইন্ডোস নতুন করে দিবেন , ব্রাউসার নতুন করে ইনস্টল দিবেন। নতুন ইমেইল এড্রেস এন্ড নতুন নম্বর দিয়ে

ফ্রেশ একাউন্ট খুলবেন । আসা করি প্রব্লেম করবে না।

২) এ্যাকাউন্ট এ same সোশ্যাল মিডিয়া এ্যাকাউন্ট অ্যাড করবেন না । যদি অ্যাড করতে চান তাহলে ডিফারেন্ট করবেন । আগেরটার সাথে

যেনো কোনো মিল না থাকে। আর যদি ঝামেলা মনে হয় তাহলে না অ্যাড করে ভালো ।

নতুন গিগ

১) গিগ এ কোনো কপি পেস্ট করবেন না । সব নিজে লেখার চেষ্টা করবেন ।

২) নতুন অবস্থায় ৭টা গিগ আপলোড দিবেন । এতে কাজ পাওয়ার চান্স বেশি থাকে ।

গিগ ইমেজ:

১) ইউনিক গিগ ইমেজ দেয়ার চেষ্টা করবেন । এন্ড ইমেজ হবে সিম্পল এন্ড চোখে লাগে এমন।

২) ইমেজ এ টেক্সট দিবেন বড়ো করে তাহলে BUYER রা খুব সহজে আপনার গিগ কি টপিক এর উপর তা বুজতে পারবে ।

গিগ ডেসক্রিপশন:

১) গিগ ডেসক্রিপশন এ লিখবেন খুব সিম্পল এন্ড ডাইরেক্ট ফরওয়ার্ড ।আপনি কি সার্ভিস ডিসিশন সেটা তুলে ধরবেন। এন্ড পারলে একটু

ডেসক্রিপশন তা মজাদার করে তুলবেন।

২) উপরের পিকচার এ যে স্টেপ গুলো দেয়া আছে ঐগুলো ফলো করলে আসা করি একটা ভালো গিগ ডেসক্রিপশন লেখা হয়ে যাবে যা

আপনার গিগ rank করতে হেল্প করবে ।

গিগ কীওয়ার্ড :

১)গিগ কীওয়ার্ড গুলো খুব বুজে শুনে দিবেন । ১০টা টপ গিগ এর কীওয়ার্ড দেখে দেন নিজে একটা কীওয়ার্ড লিস্ট বানিয়ে সেগুলো দিবেন ।

কিন্তু ফুল কপি করবেন না একজন এর কাজ থেকে। ৫ জন এর থেকে 5টা নিন জিনিস নিয়ে কাজ করতে পারবেন।

২) ভিডিও দেয়ার চেষ্টা করুন:

Fiverr হচ্ছে এমন ১টি মার্কেটপ্লেস যেখানে আপনি যাই পারেন না কেন তা দিয়েই আপনি ইনকাম করতে পারবেন। অর্থাৎ ফাইবার হচ্ছে 

এমন একটি বেচা কেনা করার মার্কেটপ্লেস যেখানে আপনি একটি প্রোডাক্ট বিক্রি করবেন আর একজন বায়ার সেটি আপনার কাছ থেকে কিনবে।

www.fiverr.com আপনি যে কাজটি পারেন সেটি এ সাইটে অফার করবেন এবং বায়ার তার প্রয়োজন অনুযায়ী আপনাকে দিয়ে কাজটি

করিয়ে নেবে। সুতরাং এখানে আপনাকে কাজ খুজঁতে হবে না বরং বায়ারই তার কাজ করানোর জন্য আপনাকে খুঁজে নেবে।

আজ এখানে শেষ করছি। আশা করি আমি আপনাদের কে Fiverr সর্ম্পকে কিছুটা হলেও বুঝাতে পেরেছি। লেখা গুলো পড়ে ভালো লাগলে

অবশ্যই আপনার বন্ধুদেরকে শেয়ার করতে ভুলবেন না । আপনার সুচিন্তিত মতামত আমার একান্ত কাম্য। তাই এই বিষয়ে আপনার যদি কোন

মতামত থেকে থাকে তাহলে অবশ্যই নিচে কমেন্ট করে জানাবেন। আমি আনন্দের সহিত আপনার মতামত গুলো পর্যালোচনা করে রেপ্লাই

দেওয়ার চেষ্টা করবো। ভাল থাকবেন।

অবশ্যই Fiverr Account Sign Up করবেন। এবং কাজ শুরু করবেন। আপনার জীবন বদলানোর দায়িত্ব আপনার।

1 thought on “Fiverr এর কিছু গুরুত্বর্পূণ নিয়ম কানুন ,না মানলে সাসপেন্ড হতে পারেন। Spandada-11”

  1. Amazing post. Articles which have meaningful and insightful remarks are more enjoyable, at
    least to me. It is interesting to read what other people thought and
    how it relates to their customers, as their view could possibly assist you in the future.

    King regards,
    Boswell Raahauge

    Reply

Leave a Comment