আজ নিজেকে অনেক হালকা মনে হচেছ।(Feeling a lot lighter today.)

 

অনেক বছর চাকুরী করে নিজেকে যত না ভাল লাগাতে পেরেছি । তার চেয়ে ভাল লাগছে আজ থেকে অনলাইনে কাজ করবো এটা ভেবে। যা 

হোক আজ বলবো , কেন আমি আজ এতো খুশি । বিষয় টি সামান্য হলে ও আমার দৃষ্টিতে এটা অনেক আনন্দের ও ভাল লাগার । অনেক বছর 

চাকুরী করেছি । 

 

.গুগল এডসেন্স এর বিকল্প ওয়েবসাইট সর্ম্পকে আলোচনা। ৫টি সেরা বিজ্ঞাপন ওয়েবসাইট।

.

কিন্তু নিজেকে নিয়ে ভাবার মত কিছু ছিল না আমার জীবনে শুধু ছিল অমানুষিক পরিশ্রম ও কষ্ট ।ছিল না মনে কোন শান্তি। তাই সিদ্ধান্ত

 নিয়ে ছিলাম যে অনলাইনে কাজ করবো । এবং নিজের আগামি দিনটাকে শান্তির, সুখের ও আনন্দের করবো ।  তাই আমি অনলাইনে

বুঝে  শুনে এ্র্র্র্যাফিলিয়েট মাকেটিং এর কাজ করছি । আজ নিজেকে অনেক ভাগ্যবান মনে হচ্ছে ।  নিজে অনেক হালকা লাগছে । বুক

ভরেশান্তি স্বাস নিতে পারছি । অল্প পরিশ্রম করে অনায়াসে ভাল আয় করা যায় এ্র্র্র্যাফিলিয়েট মাকেটিং এ কাজ করে । 

.

এ্র্র্র্যাফিলিয়েট মাকেটিং : 

.

প্রথমে আমি অনলাইনে অনেক খুজেছি যে কিভাবে অল্প পরিশ্রম করে অনায়াসে ভাল আয় করা যায় । কাজ করে আবার না করে 

কিভাবে আয় করা যায় । সাথে সাথে আমি অনেক কাজের লিংক পেয়েছি । তার মধ্যে আমার ভাল লেগেছে এ্যাফিলিযেট মার্কেটিং।

 এ্যাফিলিযেট মার্কেটিং হল এমন একটা কাজেরমাধ্যম যেখানে আপনি বসে থাকলে ও ইনকাম করা যায় । যদি আপনি সঠিক ভাবে তা

 করতে পারেন । তবে এ্যাফিলিযেট মার্কেটিং করতে আপনার অবশ্যই একটি ওয়েবসাইট থাকতে হবে ।

.

এটা থাকা খুবই জরুরি।তাই আমি এস,এম,এন জামান স্যারের কাছ থেকে এ্যাফিলিযেট মার্কেটিং সম্পর্র্কে বিস্তারিত জানি এবং

নিজে একটি  ওয়েবসাইট খুলে নিলাম । আামার ওয়েবসাইটির নাম হল : www.makemoneywithdada.com আজ আমি 

অনেক খুশি যে এটি আমার ওয়েবসাইট এবং  আমি এখানে যা  খুশি  তাই করতে পারি।

.

পড়ুন : যে-সব প্রোডাক্ট বাছাই করবেন অনলাইনে বিক্রির জন্য।

.

দ্বিতীয় এটা আপনার একটি নিজস্ব ঠিকানা, যে কোন সময় আপনি আমাকে এখানে পাবেন। তৃতীয় এখান থেকে আমি এফিলিয়েট

মার্কেটিং করে আয় করতে পারবো যতো খুশি ততো । আপনি আমার মত এ্যাফিলিযেট মার্কেটিং করতে চান । চান একটি নিজস্ব 

ওয়েবসাইট তাহলে দেরি করছেন কেন।আজিই সিদ্ধান্ত নিয়ে নেমে পড়ুন আপনার ও আমার পছন্দের কাজ এ্যাফিলিযেট মার্কেটিং 

জগৎতে ।  কাজ করুন, আয় করুন ।

পরিবারকে নিয়ে ভাল থাকুন । 

Leave a Comment