১০ টি সেরা উপায় অনলাইনে আয় করার জন্য জেনে নিন।

অনলাইন থেকে আয় করার সাইট রয়েছে অসংখ্য তার মধ্য ভাল আয় করা যায় এমন সাইট সর্ম্পকে

যারা জানেন না তাদের জন্য আমার এ লেখা। আপনি অনলাইনে কাজ করে প্রচুর পরিমাণে ওয়েবসাইট

রয়েছে যে এই ওয়েবসাইটগুলো থেকে মানুষ প্রচুর পরিমাণে টাকা উপার্জন করছে আমি আজকে

আপনাদের কে 10 টি ওয়েবসাইট এর সাথে পরিচয় করে দেবো যে 10 টি ওয়েবসাইট থেকে আপনি প্রচুর

পরিমাণে অর্থ উপার্জন করতে পারবেন। সেই ওয়েবসাইট গুলো থেকে আপনি লাইফটাইম প্যাসিভ

ইনকাম করতে পারবেন এবং অ্যাক্টিভ ইনকাম করতে পারবেন।

তাহলে আসুন জেনে নেওয়া যাক  সেই ওয়েবসাইট গুলো সম্পর্কে যেখান থেকে আপনি অনেক লক্ষ লক্ষ

টাকা আয় করতে পারবেন।

1. Fiverr :

ফাইবার একটি জনপ্রিয় ওয়েব সাইট।এ সাইটে অনেক বায়ার পাওয়া যায়। যারা বিভিন্ন প্রোডাক্ট কেনা

এবং বিভিন্ন সার্ভিস নেওয়ার জন্য এই ওয়েবসাইটে আসে। এটি মূলত একটি ফ্রিল্যান্স মার্কেটপ্লেস আপনি

যদি কোন ভালো একটি স্কিলর অধিকারি হন তাহলে আপনি এই ওয়েবসাইটটিতে এসে সেটি কাজে

লাগিয়ে আয় করতে পারেন।এখানে অনেক ধরনের কাজ পাওয়া যায় গ্রাফিক্স ডিজাইন , ওয়েব ডিজাইন,

 সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং , আরো অনেক ধরনের কাজ পাওয়া যায় । এর মধ্যে আপনি যেকোন কাজ

করে এ ওয়েবসাইটটি থেকে আয় করতে পারেন।

আরো জানুন: কিভাবে Fiverr এ্যাকাউন্ট খুলবেন এবং কাজ করবেন?

2.Shopify:

Shopify ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আপনি ড্রপ শিপিং বিজনেস করতে পারেন ।আপনি চাইলে যে কোন

একটি ই-কমার্স মার্কেটপ্লেসের সাথে  শপিফাই এস্টরে ইট্রিগেশন করে আপনি ড্রপ শিপিং বিজনেস করতে

পারেন। আপনি আমাদের জামান আলী এক্সপ্রেস ডটকম ই-কমার্স সাইটের সাথে আপনার সপিফাই স্টোর

এ্যড করে এই ওয়েব সাইটটি থেকে আয় করতে পারেন। আপনি এ বিষয়ে যদি না জেনে থাকেন তাহলে

ইউটিউব অথবা গুগল এ সার্চ করে এ বিষয়ে সম্পর্কে প্রচুর পরিমাণ ফ্রি ভিডিও আপনি পেয়ে যাবেন

আপনি এখান থেকে দেখেও শিখতে পারবেন।

3. Clickbank :

Clickbank একটি জনপ্রিয় ওয়েবসাইট । যে ওয়েবসাইটে কাজ কাজ করতে পারবেন বিভিন্ন ধরনের

প্রোডাক্ট নিয়ে এবং  প্রোডাক্ট গুলো  কমিশনের মাধ্যমে সেল করতে পারেন।ক্লিকব্যাংক মানুষ এফিলিয়েট

মার্কেটিং আয় করে থাকে এবং ক্লিক ব্যাংক এর কিছু ডিজিটাল প্রোডাক্ট পাওয়া যায় । যেগুলো সিপিএ

মার্কেটিং হিসেবে ব্যবহৃত হয়। আপনি  ভালো ভাবে কাজ শিখে নিয়ে এ ক্লিক ব্যাংক অ্যাকাউন্ট করে

নিতে পারেন এবং প্রচুর পরিমাণে অর্থ উপার্জন করতে পারেন।

4. YouTube :

ইউটিউব  সর্ম্পকে  আমরা সবাই জানি যে এখন ইউটিউব থেকে ভাল টাকা আয় করা যায়।বর্তমান

সময়ে ভিডিও শেয়ারিং সাইট গুলোর মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় সাইট হচ্ছে ইউটিউব। ইউটিউব থেকে

আপনি আয় করতে পারেন খুবই সহজে ।আর ইউটিউবে যদি আপনি কাজ করেন তাহলে  ইউটিউব

থেকে একটা প্যাসিভ ইনকাম করতে পারবেন। সেটি আপনি কিছু একটি সময় কাজ করে যদি পরবর্তী

এক সময় কাজ নাও করেন তবে সেখান থেকে আপনি একটি ইনকাম পেয়েই যাবেন। আপনারও

ইউটিউব এ ভিডিও আপলোড করতে পারেন কিন্তু সেই ভিডিওগুলো মনিটাইজেশন এর মাধ্যমে ইনকাম

করতে পারেন বর্তমান সময় ইউটিউব মনিটাইজেশন করার জন্য 1 হাজার সাবস্ক্রাইবার এবং 4000

ঘন্টা ওয়াচ টাইম থাকতে হয়। এই নিয়ম গুলো  সব ফুল ফিলাপ হয়ে গেলে আপনি ইউটিউব চ্যানেলটি

মনিটাইজেশন করতে পারবেন এবং ইনকাম করতে পারবেন ।

আরো জানুন: ইউটিউব কি? ইউটিউব সর্ম্পকে বিস্তারিত আলোচনা কর?

5. Amazon :

Amazon বিশ্বের সবচেয়ে বড় ই-কমার্স সাইট। এই সাইটে আপনি কাজ করে প্রচুর টাকা আয় করতে

পারবেন।এখানে অনেক উপায়ে আপনি আয় করতে পারবেন।তার মধ্যে ভাল তিনটি মাধ্যম সর্ম্পকে

আমি আপনাদেরকে বলছি।

amazon mturk মাধ্যমে আপনি আপনার বা অন্য কারো বিভিন্ন ধরনের  মিউজিক বিক্রি করতে

পারবেন।

Amazon kindle Publishing  ব্যবহার করে আপনার যদি কোন ই-বুক থেকে থাকে তাহলে

আপনি সেই বুকগুলো অ্যামাজন মারকেটপ্লেসেস বিক্রি করে দিতে পারেন এবং যেখান থেকে একটি

প্যাসিভ আয় করতে পারবেন।

amazon associates  বর্তমান সময়ের জনপ্রিয় আর্নিং প্রসেস এটির মাধ্যমে অ্যামাজন

অ্যাফিলিয়েশন করে আর্নিং করা যায় এ্যামাজন এফিলিয়েট অনেক মানুষ করছে এবং অনেকেই

অ্যামাজন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে প্যাসিভ ইনকাম করছে। অ্যামাজন সাধারণত তিনটি ভাবে

পেমেন্ট দিয়ে থাকে একটি হচ্ছে অ্যামাজন গিফট কার্ড ,আরেকটি হচ্ছে ব্যাংক ট্রান্সফার, যেটা শুধুমাত্র

ইউ এস দের জন্য এবং ইউ এস ব্যাংক একাউন্টে ট্রান্সফার করে দিয়ে থাকে এবং চেক আপনার যদি

লুকালে হয়ে থাকেন তাহলে আপনার চেকের মাধ্যমে আপনার পোস্ট কোড এর মাধ্যমে পেমেন্ট আনতে

পারেন।

6. Upwork :

Upwork  এই ওয়েবসাইটটি  বিশ্বের মাঝে একটি জনপ্রিয় ওয়েবসাইট। এ ওয়েব সাইটে প্রতিদিন

মিলিয়ন মিলিয়ন ডলারের লেনদেন হচ্ছে এই মার্কেটপ্লেস টিতে এটি হচ্ছে একটি ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস।

এখানে অনেক বায়ার আছে তেমনি কাজ ও অনেক পাওয়া যায় ।এখানে গ্রাফিক্স ডিজাইন, ওয়েব

ডেভলপমেন্টের , এস ইও ,সামাজিক কাজ, ডাটা এ্যান্ট্রি ইত্যাদি কাজ করতে পারবেন।  আপনি চাইলে

এখানে কাজ করতে পারেন। আপনি যদি  Upwork সাইট সর্ম্পকে ভালো  না জেনে থাকেন তাহলে

আপনি ইউটিউবে সার্চ করতে পারেন এ বিষয়গুলো সম্পর্কে প্রচুর পরিমাণে ভিডিও পেয়ে যাবেন এবং

বিস্তারিত জানতে পারবেন।

7. Shutterstock :

ছবি বিক্রি করার জনপ্রিয় ওয়েবসাইট  হচ্ছে Shutterstock .আপনি যদি ভালো ছবি তুলতে পারেন

এবং সেগুলো ভালভাবে ছবি এডিট করতে পারেন, এবং সেই ছবিগুলো যদি ইউনিক হয় তাহলে আপনি

এই ওয়েবসাইটটিতে আপনার ছবি গুলো বিক্রি করে দিয়ে ভালো টাকা আয় করতে পারবেন। এখান

থেকে প্রচুর মানুষ তাদের বিজনেসের জন্য ছবি কিনে থাকে চাইলে আপনিও এই মার্কেটপ্লেসের ছবি বিক্রি

করতে পারেন।

8. Takelessons :

Takelessons সাইটটি একটি শিক্ষানিয় সাইট এই সাইটে আপনি যেকোনো কিছু শিখাতে পারেন।

আপনি যে বিষয়টা ভাল জানেন সে বিষয়টি আপনি এ সাইটে এসে মানুষকে শিখাতে পারেন এবং এই

শিখানোর মাধ্যমে আপনি একটি প্যাসিভ ইনকাম করতে পারবেন এই ওয়েবসাইটটিতে।

9. Flippa :

Flippa সাইটটি একটি জনপ্রিয় সাইট। এই সাইটে সাধারনত ডিজিটাল প্রোডাক্ট কেনা বেচা হয়আপনার

যদি কোন ওয়েবসাইট বা কোন অ্যাপস থাকে এবং কোন শপিফাই অ্যাকাউন্ট থেকে থাকে তবে সেগুলো

আপনি এ মার্কেটপ্লেসে বিক্রি করে আয় করতে পারেন।

10. Teespring :

Teespring সাইটি হচ্ছে একটি টিশার্ট কেনা বেচার ওয়েব সাইট ।এই ওয়েব সাইটে আপনি আপনার

তৈরি করা টি-শার্ট বিক্রি করতে পারবেন .আপনি যদি টি শার্ট ডিজাইন করতে পারেন অনলাইনে সেখান

থেকেও কাজ করতে পারবেন। এবং ভালো টাকা আয় করতে পারবেন।আর যদি না জেনে থাকেন তাহলে

ইউটিউব গুগলের সার্চ করতে পারেন ইউটিউবে সার্চ করলে প্রচুর পরিমাণে ফ্রি ভিডিও পেয়ে যাবেন

সেখান থেকে আপনি ভালোভাবেশিখে নিয়ে কাজ করতে পারেন।

আশা করি আপনারা আমার লেখাটি ভালভাবে বুঝতে পেরেছেন।

ভাল থাকবেন।।

1 thought on “১০ টি সেরা উপায় অনলাইনে আয় করার জন্য জেনে নিন।”

Leave a Comment