বাংলায় ভাষায় মাত্র ৬ থেকে ৭ দিনের মধ্যে এ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং শুরু করুন

আপনি অনলাইনে এ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করতে চান । তাহলে আর দেরি করছেন কেন, এ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এআপনি আপনার

ক্যারিয়ার গড়তেপারেন খুবিই অল্প সময়ে এ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং একটিমজার কাজ যেখানে আপনি আপনার কাজের টাকা তো

পাবেন সঙ্গে পাবেন প্যাসিভ ইনকাম । 

প্যাসিভ ইনকাম কি? 

প্যাসিভ ইনকাম হল সরাসরি কাজের সাথে যুক্ত না থেকেও যে ইনকাম করা যায় সেটিই হলো প্যাসিভ ইনকাম। 

ইংরেজি সমস্যা : 

ভাবছেন ইংরেজি পারি না, কি ভাবে আমি অনলাইনে এ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এর কাজ করবো । হ্যাঁ আমিবলছি ইংরেজি ভাষা

 ছাড়া ও আপনি এ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করতে পারেন আপনার নিজস্ব বাংলা ভাষায়। কথাটি শুনে অবাক লাগছে না, 

লাগারি কথা, আমি প্রথমে অবাক হয়ে ছিলাম । 

তারপর নিজে দেখে,বুঝে আজ আমি এ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করছি । এবং আমার সাথে সাথে আপনি ও যেন এটা করতে

পারেন তারিই জন্য আমার এ লেখা।

আরো জানুন: বিভিন্ন ধরনের এফিলিয়েট মার্কেটিং সর্ম্পকে আলোচনা ।

 

এফিলিয়েট মার্কেটিং শুরু করতে সময় লাগবে মাত্র ৬ থেকে ৭ দিন! 

 

এ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং শুরু করতে এখন সময় লাগে মাএ ৬ থেকে ৭ দিন  তাহলে ভাবছেন সেটা কিভাবে চিন্তা করছেন

কেন?  আমি তো আছি, সবই বলবো ।এ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করতে সবার থাকতে হবে একটি নিজস্ব ওয়েব সাইট,

কিন্তু হ্যাঁ এ ওয়েব সাইটওপেন করা আপনার জন্য যথেষ্ট কষ্টসাধ্য। তার জন্য চিন্তার কোন কারন নাই ।

 

আমি আপনাকে এমন একটি কোম্পানির সন্ধান দেবো যেখানে খুবিই সহজে একটি ওয়েব সাইট কিনতে পারেন ।  কোন

রকম সমস্যা ছাড়াই, যারা আপনাকে একটি এ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এর সাইট খুলে দেবে এবং আপনাকে দেবে হাইলি

 সিকিউরিটি  ।  মাএ ৬ থেকে ৭ দিনে। ওয়েবসাইট তৈরী করতে কেমন খরচ হতে পারে । তাহলে শুরু করা যাক।

তাহলে এখন জেনে নেই যে একটি সাইট তৈরিতে কি কি জিনিসের প্রয়োজন হয়।

 

একটি সাইট তৈরী করতে নিম্নোক্ত জিনিসগুলো প্রয়োজন –

 

১. একটি ডোমেইন (৮০০ টাকা থেকে শুরু)

 

২. একটি হোস্টিং প্যাক (সরাসরি আমেরিকান হোস্টিং ১৩০০ টাকা থেকে শুরু)

 

৩. একটি SSL সার্টিফিকেট (১৫০ টাকা থেকে শুরু)

 

৪. একটি কন্টেন্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম (ফ্রি)

 

৫. একটি থিম (ফ্রি অথবা প্রিমিয়াম আপনার পছন্দ অনুযায়ী কিনতে পারেন) ও

 

৬. কিছু প্লাগিনস (ফ্রি প্লাগিন্সই যথেষ্ট আপনি নিজেই করে নিতে পারেন)

 




এখানে ক্লিক করে Namecheap এর সাইটে প্রবেশ করুন আপনার পছন্দের একটি বাংলা ওয়েব সাইট বানিয়ে নিন।

এখানে কন্টেন্ট মানে হলো বাংলায় আর্টিকেল লেখা ।বিভিন্ন আর্টিকেল লিখে আপনি অগণিত প্রোডাক্ট কনভার্ট করতে

পারেন যা আপনাকে একটি বিরামহীন আয়ের পথ দেখাবে। তো প্রথমেআপনার ওয়েবসাইটটি রেডি করুন।

 

ওয়েবসাইটটি হাতে পাওয়া মানেই হলো আপনি একজন এফিলিয়েট মার্কেটার হিসেবে নাম লেখালেন। ভাল লাগছে না ।

 তো বন্ধুরা আর দেরি করছেন কেন ?  আজই খুলে ফেলুন আপনার পছন্দের ওয়েবসাইটটি ।  এরপর কনটেন্ট তৈরি

করতে হবে বাংলা ভাষায়।  কিভাবেকনটেন্ট তৈরি করবেন তা পরবর্তী লেখায় আমি আপনাকে সাহায্য করবো ।

আজ এ পযর্ন্ত।

 

ভাল থাকবেন । 

Leave a Comment