ফ্রি ওয়েবসাইট কি? জেনে নিন ফ্রি ওয়েবসাইটের প্রধান ক্ষতিকর দিক সমূহ।

ফ্রি ওয়েবসাইট কি? জেনে নিন ফ্রি ওয়েবসাইটের প্রধান ক্ষতিকর দিক সমূহ।
ফ্রি ওয়েবসাইট বলতে কি বুঝায়:

সাধারণত, কোন নির্দিষ্ট ওয়েব সার্ভারে রাখা বিভিন্ন ধরনের ওয়েব পৃষ্ঠা, আপলোড কৃত ছবি, অডিও,

ভিডিও ও অন্যান্য বিষয় যেমনঃ Infographic, GIP, Animation ইত্যাদি ডিজিটাল তথ্যের

সমষ্টিকে আমরা ওয়েবসাইট বলে থাকি। যা ইন্টারনেটে অ্যাক্সেস করাতে হলে আপনাকে নিচের ৩ টি

কাজের মধ্য দিয়ে এগোতে হবে।

  1. অবশ্যই একটি ডোমেইন নেম রেজিস্ট্রেশন করতে হবে ।
  2. পছন্দের প্লান ও প্যাকেজ অনুযায়ী ভালো মানের ওয়েব হোস্টিং কিনতে হবে ।
  3. সব শেষে ওয়েবসাইটটি ডিজাইন করতে হবে ।

এই ৩ টি কাজের জন্য আপনাকে বেশ কিছু টাকা খরচ করতে হবে । যখন আপনি এগুলো সবকিছু

( ডোমেইন নেম রেজিস্ট্রেশন, ওয়েব হোস্টিং, এবং ডিজাইন )  ফ্রিতে অ্যাক্সেস পাবেন নির্ধারিত একটি

কোম্পানির ওয়েবসাইটের মাধ্যমে তাহলে সেটা হলো আপনার ফ্রি ওয়েবসাইট ।

ইন্টারনেটে সার্চ করলে এরকম অনেক কোম্পানির ওয়েবসাইট পাওয়া যাবে যারা আপনাকে ফ্রি তে

ডোমেইন, হোস্টিং ও সাইট বিল্ডাপ সার্ভিস অফার করবে। কিন্তু আপনি যখন ওয়েবসাইট রান শুরু

করবেন তখন থেকেই বুঝতে পারবেন এর লিমিটেশন এবং সেই সাথে দেখবেন অনেক সার্ভিসই যেমন-

এসএসএল সার্টিফিকেট, আনলিমিটেড ব্যান্ডউইথ ও বিজিনেস ইমেইল সহ অনেক গুরুত্বপূর্ণ বিষয়াদি ফ্রি

না। ফ্রি ওয়েবসাইট কিনলে যে সমস্ত সমস্যা হতে পারে তার বিষয়ে আলোচনা করছি আশা করি

আপনাদের উপকারে আসবে।

ফ্রি ওয়েবসাইটের প্রধান ক্ষতিকর দিক সমূহগুলো হলো:

আপনি যদি  ফ্রি সাইট তৈরি করার কথা চিন্তা করে থাকেন তাহলে নিচের পোস্ট গুলো আপনার জন্য ।

ঠিক এই জন্য আমি ফ্রি ওয়েবসাইটের প্রধান কিছু ক্ষতিকর দিক নিয়ে আলোচনা করছি।

চলুন জেনে নেওয়া যাক—

আনপ্রফেশনাল ওয়েব অ্যাড্রেস :

ফ্রি হোস্টিং সাইটে ডোমেইন নাম সিলেক্ট করার পর তারা তাদের ওয়েব অ্যাড্রেস আপনার ডোমেইন

নামের সাথে যুক্ত করে দিবে। যেমন: eshop.freewebsite.com; eshop.wordpress.com;

বা eshop.weebly.com  যা দেখতে আনপ্রফেশনাল ওয়েব অ্যাড্রেস এর মতো। যেটা কিনা কখনোই

একটি প্রফেশনাল ওয়েব অ্যাড্রেস হতে পারে না। যার ফলে সিরিয়াস ইউজাররা কখনোই আপনার এই

ডোমেইন নামকে ভালোভাবে নিবে না এবং পরবরতিতে তারা আপনার সাইটে আর ভিজিট করবে না।

ডোমেন নেম অনেক বড় হওয়া:

আপনার ডোমেইন নামের সাথে তারা তাদের কোম্পানির ওয়েব অ্যাড্রেস যুক্ত করে দেয় যার কারনে

এতবড় ডোমেন নাম মনে রাখাও ইউজারদের জন্যে কষ্টকর। তাই আপনার উচিত একটি কাস্টম

ডোমেন ইউজ করা। যেখানে নরমালি বাইরের কোম্পানিগুলো টপ লেভেল ডোমেইনের জন্য বার্ষিক

১০০০- ২০০০ টাকা চার্জ করে থাকে। সেখানে বাংলাদেশের অনেক ডোমেইন ও হোস্টিং কোম্পানি

রয়েছে যাদের কাছ থেকে মাত্র ৭০০-১০০০ টাকার মধ্যে আপনি একটি ডোমেইন কিনতে পারবেন।

অপ্রয়োজনীয় বিজ্ঞাপন দেয়া:

ফ্রি হোস্টিং কোম্পানি গুলো বিজ্ঞাপনের উপর নির্ভরশীল হয়ে থাকে এবং বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই

বিজ্ঞাপনগুলো এডাল্ট হয় যা আপনার ওয়েবসাইটের মান এবং সৌন্দর্য নষ্ট করে। যার ফলে

ইউজাররা সাইট ব্রাউজ করতে বিব্রত হয়ে থাকেন।

সাইটের স্পিড স্লো হয়ে থাকে:

বেশিরভাগ ফ্রি হোস্টিং সার্ভিস প্রোভাইডররা একটি সার্ভারে অনেক পরিমাণ ওয়েবসাইট রান করায়।

যার ফলে ওই সার্ভারের সকল ওয়েবসাইট খুবই ধীরে বা স্লোলি লোড হয়। স্লো ওয়েবসাইট ভিজিটরদের

বাজে এক্সপেরিয়েন্স দেয় যা সাইটের SEO (Search Engine Optimization) এর জন্যে তা

মোটেও ভালো নয়!

লিমিটেড ব্যান্ডউইথ অ্যান্ড লো ডিস্ক স্টোরেজ:

ব্যান্ডউইথ হলো আপনার সার্ভার থেকে ইউজার ব্রাউজারে ডাটা ট্রান্সফারের পরিমাণ। এটা ব্যয়বহুল

তাই ফ্রি ওয়েবসাইটগুলোতে ব্র্যান্ডউইথের পরিমাণ লিমিটেড থাকে। আর এই ফ্রি ওয়েবসাইট গুলো একই

সার্ভারেন।অনেক ওয়েবসাইটের রিসোর্ট এবং হার্ডডিক্স শেয়ার করে। ফলে ফ্রি কোম্পানি গুলো আপনাকে

খুবই লিমিটেড ডিস্ক দিবে এবং যখন আপনি এই লিমিট ক্রস করবেন তখন তারা আপনাকে অতিরিক্ত

পে করতে বলবে!।

সাইটটি হ্যাক হওয়ার সম্ভাবনা থাকে:

ফ্রি ওয়েবসাইটগুলোতে হাই সিকিউরিটি না থাকার কারণে সবসময় হ্যাকিং এর সম্ভাবনায় থাকে। তাই

আপনার ফ্রি ওয়েবসাইট টি একবার হ্যাক হয়ে গেলে আপনার জন্যে তা ফিরিয়ে আনা খুবই কষ্টকরই

হবে।

ম্যালওয়ার ডিস্ট্রিবিউটর:

বিজ্ঞাপন ও নিম্নমানের সিকিউরিটি নানা ধরনের থাকার ফলে ফ্রি হোস্টিং কোম্পানিগুলো ম্যালওয়ার

ছড়ানোর জন্যে অনেকটা কার্যকরী। এতে করে আপনার ফ্রি সাইট টি ভাইরাস দ্বারা অ্যাটাক হবে এবং

আপনার সাইট ডাটা গুলো বিনষ্ট হবে।

ফ্রি ওয়েবসাইট যে কোন সময় সাইট বন্ধ হতে পারে :

ফ্রি ওয়েবসাইট কোম্পানিগুলো নির্দিষ্ট সময়ের জন্য তাদের ব্যবসা পরিচালনা করে থাকে। যখন তাদের

ব্যবসায় আর লাভ হবে না তখন যে কোন সময় তাদের ব্যবসা গুটিয়ে ফেলতে পারে। যার ফলে আপনি

আপনার সাইটের সকল ডাটা হারাতে পারেন।

ইনফরমেশন সেল:

ফ্রি ওয়েবসাইট কোম্পানিগুলোর প্রধান উদ্দেশ্য হলো যেকোন উপায়ে টাকা উপার্জন । তাই আপনি যদি

তাদের সার্ভিসের বিনিময়ে নির্ধারিত চার্জ পে না করে থাকেন ফলে তারা অন্য উপায়ে যেমন- আপনার

ইমেইল এড্রেস, ওয়েবসাইটের এবং ব্যক্তিগত তথ্য, এমন কি আপানার সাইট অ্যাড্রেসটি ও অন্য কারো

কাছে সেল করে টাকা ইনকাম করে। যখন আপনি এটা বুঝতে পেরে তাদের কাছে অবজেকশন দিবেন

তখন তারা ঘুরিয়ে পেচিয়ে বিভিন্ন ধরনের কন্ডিশন দিয়ে এগুলোর বৈধ্যতা করে নিবে।

মোবাইল ফ্রেন্ডলি :

ফ্রি ওয়েবসাইট কোম্পানি গুলো বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই ডেস্কটপ নির্ভর ড্যাশবোর্ড ডিজাইন করে থাকে। যার

ফলে এটা মোবাইল ফ্রেন্ডলি হয় না। যা গুগল খুবই অপছন্দ করে থাকে।

ব্র্যান্ডেড ইমেইল :

ফ্রি ওয়েবসাইটে অন্যান্য বিষয় গুলো যেমন লিমিটেড ঠিক তেমনি আপনি নিজের নাম দিয়ে কোন

ব্র্যান্ডেড  ইমেইল খুলতে পারবেন না। যার ফলে আপনাকে সবসময়ের জন্য জি-মেইল অথবা হট-মেইল

ব্যাবহার  করতে হবে।

আরো জানুন:

উপরের এই প্রধান ক্ষতিকর দিক ছাড়াও আরও বেশ কিছু সমস্যা রয়েছে। যেমন- ফ্রি ওয়েবসাইট

কোম্পানি গুলোতে কোন ব্যাকআপ অপশন নেই, মাঝে মধ্যে ইমেইল অফারের জন্যে টার্গেটেড হবেন।

এছাড়া লিমিটেড ফাইল আপলোড অসুবিধা থাকার পাশাপাশি আপনি কোন ধরনের কাস্টমার সাপোর্ট

পাবেন না। তাই ফ্রি হোস্টিং এর চেয়ে প্রিমিয়াম ডোমেইন ও হোস্টিং হাজার গুনে ভালো।  বিশ্বের বিভিন্ন

দেশে এমনকি আমাদের বাংলাদেশেও অসংখ্য ডোমেইন এবং হোস্টিং কোম্পানি রয়েছে যারা কিনা ভালো

মানের  ডোমেইন এবং হোস্টিং সেবা প্রদান করে থাকে। এবং আপনি খুব কম দামে তা ক্রয় করে ভালো

কাজ করতে পারবেন। তবে ডোমেইন ও হোস্টিং সম্পর্কে ভালো করে জেনেশুনে তারপর সঠিক একটি

প্রতিষ্ঠান থেকেই নেয়া ভালো। তা না হলে পরবর্তীতে বিভিন্ন ধরনের সমস্যার সম্মুখীন হতে হবে।।

ভাল থাকবেন।।

simonpan

শিমন পান হলেন , এই ওয়েব সাইটের একজন প্রফেশনাল এফিলিয়েট মার্কেটার। এফিলিয়েট মার্কেটিং বিষয়ক খুঁটিনাটি বিষয়বস্তূ নিয়ে আলোচনা করা এবং মাতৃভাষা বাংলাতেই কিভাবে একজন ব্যাক্তি জিরো থেকে শুরু করে সফলতার শীর্ষে অবস্থান করতে পারেন তা নিয়ে আলোচনা করাই এই ওয়েবসাইট এর মূল উদ্দেশ্য । তিনি অনলাইনে কাজ শুরু করেন ২০১৮ সালের জানুয়ারী মাসে । তার প্রথন সাইটটির নাম হল www.makemoneywithdada.com । এফিলিয়েট মার্কেটিং বিষয়ক বিভিন্ন আপডেট পেতে নিয়মিত এ ওয়েবসাইট টি ভিসিট করুন। যেকোনো তথ্যের জন্য যোগাযোগ করুন :- simonpanbd@gmail.com

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *