ফ্রিল্যান্সিং কি? ফ্রিল্যান্সিং করার সুবিধা এবং অসুবিধা গুলো কি?

ফ্রিল্যান্সিং কি? ফ্রিল্যান্সিং করার সুবিধা এবং অসুবিধা গুলো কি?

কেমন আছেন বন্ধুরা? আশা করি ভালো আছেন।আজ আমি আলোচনা করবো ফ্রিল্যান্সিং কি? ফ্রিল্যান্সিং

করার সুবিধা এবং অসুবিধা গুলো কি কি সে বিষয়ে আপনারা যারা ফ্রিল্যান্সিং করে নিচের কেরিয়ার

গড়তে চান, তাদের জন্য আশা রাখি আমার এ লেখা উপকারে আসবে।

ফ্রিল্যান্সিং কি

নিজের মেধা ও অভীজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে অনলাইনে বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের সাথে চুক্তির মাধ্যমে

অনলাইনে কাজ করে টাকা আয় করাকে ফ্রিল্যান্সিং বলা হয়।

 ফ্রিল্যান্সিং যদিও একটি মুক্ত পেশা কিন্তু ফ্রিল্যান্সিংয়ে নিজের অবস্থান ভালো করার জন্য এবং বেশি

পরিমানে টাকা আয় করার জন্য মুক্তভাবে কাজ করার কোন সুযোগ নেই। একজন ফ্রিল্যান্সার

বিভিন্ন ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসে যত বেশি সময় ও শ্রম দিতে পারবে, সেই ফ্রিল্যান্সার ফ্রিল্যান্সিং করে তত

বেশি টাকা আয় করে নিতে পারবে। আর যারা ফ্রিল্যান্সিংকে মুক্ত পেশা হিসেবে ধরে নিয়ে স্বাধীনভাবে

কাজ করবে, তারা ফ্রিল্যান্সিংয়ে কখনো সফলতা অর্জন করতে পারবে না। সে কারনে আমি বলবো

আপনারা যারা অনলাইনে কাজ করে আয় করতে চান তারা অবশ্যই জেনে বুঝে তারপর কাজ শুরু

করবেন।

আপনি যদি বিশ্বাস রাখেন তবে আমি আশা করি আপনি পারবেন।

ফ্রিল্যান্সিং এর সুবিধা গুলো হলো:-

১.ফ্রিল্যান্সিং এর সবচাইতে বড় সুবিধা হচ্ছে এখানে স্বাধীনতা রয়েছে। কাজের জন্য কোন দায়বদ্ধতা থাকে না ।

২.ঘরে বসে কাজ করা যায়। কোন অফিস এর প্রয়োজন হয় না। 

৩.কাজের কোনো লিমিট নেই। যত বেশি কাজ তত বেশি টাকা।

৪.মাসে একাধিক পেমেন্ট পাওয়া যায়। যেটা কোন অফলাইন চাকরি থেকে পাওয়া সম্ভব নয়।

৫.একটি নরমাল জবের চাইতে অনেক বেশি টাকা আয় করা সম্ভব হয়।

৬.কম সময় ব্যয় করে বেশি টাকা আয় করা সম্ভব হয়।

৭.কোন ধরনের ইনভেসমেন্ট করা লাগে না।

ফ্রিল্যান্সিং এর অসুবিধা গুলো হলো:-

প্রত্যেকটি জিনিসের বা কাজের যেমন খারাপ দিক থাকে, ঠিক তেমনটি ফ্রিল্যান্সিং এর ক্ষেত্রেও কিছু

অসুবিধা রয়েছে। কাজেই ফ্রিল্যান্সিং ক্যারিয়ারে প্রবেশ করার আগে ফ্রিল্যান্সিং এর অসুবিধাগুলো জেনে

নেওয়া ভালো। এতে আপনার উপকার হবে। কারণ না জেনে ফ্রিল্যান্সিং ক্যারিয়ারে প্রবেশ করার পর

সফল হতে না পারলে, আপনি আর্থিক অভাব অনটনে পড়তে পারেন। তা্ই জেনে বুঝে তারপর এ কাজে

নামাটা ভালো। তাহলে আসুন জেনে নেওয়া যাক ফ্রিল্যান্সিং এর অসুবিধা সমূহ:-

ফ্রিল্যান্সিং এর যে সমস্ত অসুবিধা রয়েছে তা হলো:-

১.কাজের কোন নিরাপত্তা বা গ্যারান্টি নাও হতে পারে। কোনো কোনো সময় এমন হবে, আপনি সারা মাসেও একটি কাজও পাবেন না।

২.নিজের কাজ নিজেই করতে হয়। অন্যকে দিয়ে করানোর সুযোগ থাকে না।

৩.অধিকাংশ মানুষ ফ্রিল্যান্সিং বিষয়টা বুঝে না বিধায় ফ্রিল্যান্সিংকে সম্মানজনক জব হিসেবে মনে করে না।

৪.ক্লায়েন্টদের সাথে সরাসরি যোগাযোগের কোন সুযোগ থাকে না।

৫.আমাদের দেশে পেমেন্ট এর কিছু অসুবিধা আছে।

  ৬. ধৈর্য্য নিয়ে কাজ করতে অনেকে পারে না। সেজন্য অসুবিধা হতে পারে।

এ বিষয় গুলো হলো ফ্রিল্যান্সিং এর বিশেষ অসুবিধা, কিন্তু আপনি একবার কাজটি ভালো ভাবে বুঝতে

পারলে। আপনার জন্য কাজ পেতে অনেক সুবিধা হবে। এবং ভালো অংকের টাকা আয় করতে পারবেন।

লেখা গুলো পড়ে ভালো লাগলে অবশ্যই আপনার বন্ধুদেরকে শেয়ার করতে ভুলবেন না । আপনার

সুচিন্তিত মতামত আমার একান্ত কাম্য। তাই এই বিষয়ে আপনার যদি কোন মতামত থেকে থাকে তাহলে

অবশ্যই নিচে কমেন্ট করে জানাবেন। আমি আনন্দের সহিত আপনার মতামত গুলো পর্যালোচনা করে

রেপ্লাই দেওয়ার চেষ্টা করবো।

ভাল থাকবেন।

simonpan

শিমন পান হলেন , এই ওয়েব সাইটের একজন প্রফেশনাল এফিলিয়েট মার্কেটার। এফিলিয়েট মার্কেটিং বিষয়ক খুঁটিনাটি বিষয়বস্তূ নিয়ে আলোচনা করা এবং মাতৃভাষা বাংলাতেই কিভাবে একজন ব্যাক্তি জিরো থেকে শুরু করে সফলতার শীর্ষে অবস্থান করতে পারেন তা নিয়ে আলোচনা করাই এই ওয়েবসাইট এর মূল উদ্দেশ্য । তিনি অনলাইনে কাজ শুরু করেন ২০১৮ সালের জানুয়ারী মাসে । তার প্রথন সাইটটির নাম হল www.makemoneywithdada.com । এফিলিয়েট মার্কেটিং বিষয়ক বিভিন্ন আপডেট পেতে নিয়মিত এ ওয়েবসাইট টি ভিসিট করুন। যেকোনো তথ্যের জন্য যোগাযোগ করুন :- simonpanbd@gmail.com

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *