ছোট বেলার দিনটিকে আজ ও খুব ভালবাসি।(I love the days of my childhood)

ছোট বেলার দিনটিকে নিয়ে উক্তি

বয়সের ভারে হয়েছি আজ প্রবীণ, মনটা কিন্তু এখন ও চিরনতুন, সজীব আর নবীন।

স্বপ্নের মতন ছেলেবেলা মোর আসবে কি আর কখনো ফিরে? হৃদয় ছিল কবিতা মাখানো ভালোবাসা ছিল জীবন ঘিরে। যদি তুমি সারা জীবন শৈশব নিয়ে চলতে পারো, তাহলে বার্ধক্য কখনো আর আসবে না ।

দিনগুলো মোর সোনার খাঁচায় রইল না, রইল না, সেই যে আমার ছেলেবেলার নানা রঙের দিনগুলি।

ছেলেবেলার অপর নাম সরলতা। ভুল করার সময়ই হল ছেলেবেলা; যেখানে মানুষ ভুল করে শেখার জন্য।

সপ্নকে বাস্তবে রূপ দিতে সব থেকে দরকারী; একটি সুন্দর এবং কৌতূহলী শৈশবের।

আবার একবার ছোটবেলাতে ফিরে যাই, যেখানে শুধু মজা আর মজা, দুঃখ, কষ্ট, চিন্তাভাবনা কিছুই নাই ॥

ছোটদের আজ সময় কাটে হাতে হাতে ইন্টারনেটে, আগে যা কাটতি দৌড়ে, লাফিয়ে, পায়ে পায়ে খেলার মাঠে।

বাদলা দিনে মনে পড়ে ছেলেবেলার সেই গান, “বৃষ্টি পড়ে টাপুর টুপুর নদে এলো বান “।

ছোটবেলা মানেই রান্নাবাটি লুকিয়ে পরা মায়ের শাড়ি, ছোটবেলা মানে হাজারো বন্ধু এই ভাব আবার এই আড়ি। চলনা, আবার হারিয়ে যাই, সেই দূর অজানায় যেখানে ফেলে আসা স্মৃতিগুলো খুঁজলেই পাওয়া যায়।

একবার যদি আবার করে ফিরে পেতাম ছোটবেলা, কে আর চাইতো সহন করতে বড় হওয়ার এই জালা!

শৈশব আজ ফেলেছি হারিয়ে দিনগুলো আর নেই, মনের কোণে আজও পড়ে আছে, ছোট ছোট স্মৃতি সেই । কোথায় যেন হারিয়ে গেছে, হাসিখুশি আর খেলা চাইলেও ফিরে পাব না যে আর পুরোনো সেই ছেলেবেলা।

ছেলেবেলার রোদমাখা সেই দিন ফিরে আর আসবে কি কখনও, খুশি আর আনন্দে মাখামাখি সেই হাসি, তুই আর হাসবি কি কখনও?

ফিরে যে আসবে না আর কখনো। বাস্তব বড় কঠিন; বাঁচা হয়ে উঠেছে দায়, ছেলেবেলার দিনগুলিতে তাই মন ফিরে যেতে চায়।

ছেলেবেলাকার বন্ধুত্ব সবথেকে সুখময় একটি স্মৃতি যা কখনো ভোলা যায় না; তা অটুট থাকে ভালোবাসা ও বিশ্বাসের বন্ধনে।

জীবন যে এত মধুর, শৈশব যে এত সুন্দর, তা একমাত্র শৈশবের চোখ দিয়ে দেখলেই বোঝা যায় । সোনায় মোড়া আমার ছোট্ট ছেলেবেলা ভুলতে কি পারি তা কখনও?

স্বর্ণালি সে দিনগুলোতে ছিল না কোনো চিন্তা, না ছিল কোন দুঃখ, স্মৃতিতে তা ফিরে আসে এখনও।

ছোটবেলা মানেই একপশলা বৃষ্টিতে , জল জমা রাস্তায় কাগজের নৌকা ভাসানো, ছোটবেলা মানেই বাবার কানমলা, মায়ের বকুনির ভয়ে ছুটে গিয়ে ঠাম্মাকে গিয়ে আবেগে জড়ানো।

আজও রোজ বিকেল হয়, কিন্তু বিকেলে ধুলো মেখে ফিরে এলে বাবার চোখ রাঙানি আর মায়ের বকুনি খেতে হয় না;সেই বকুনির মধ্যেও কোথায় যেন মাখামাখি হয়ে ছিল একরাশ আবেগ অনুভূতি আর ভালোবাসা ।

যখন ছিল না হোয়াটসঅ্যাপ বা ফেসবুক ইন্টারনেট বা ইউটিউব, বিকেল হলেই ছিল শুধু খেলা, সকাল মানেই সাজি নিয়ে ফুল তোলা, আজ রাত দশ টার মধ্যেই বিছানায় যাওয়া সারাটা দিন আনন্দে কেটে যেত খুব।

Leave a Comment