আশা সম্পর্কিত বিখ্যাত কবিতা ও গানের কিছু অংশ।

আশা সম্পর্কিত বিখ্যাত কবিতা

কি আশায় বাঁধি খেলা ঘর

বেদনার বালুচরে

নিয়তি আমার ভাগ্য লয়ে যে

নিয়তি আমার ভাগ্য লয়ে যে

নিশিদিন খেলা করে।

.

আশায় আশায় বসে আছি

ওরে আমার মন

কখন তোমার

আসবে টেলিফোন।

আশায় আশায় বুক বাঁধি,

বন্ধু তুমি ফিরা আইলা না।

দিনে দিনে জমা হইলো,

কতো ব্যথা তুমি বুঝলা না।

কেন আশা বেঁধে রাখি।

কেন দীপ জ্বেলে রাখি।।

.

জানি আসবে না ফিরে আর তুমি।

তবু পথ পানে চেয়ে থাকি।।

জানবে না তুমি বুঝবে না তুমি

এই ব্যাথা আমার এ জ্বালা আমার।

ছিলে কাছে যখন ছিল সবই আপন।

সেই ভেবে জলে ভরে আঁখি।

কত আশা ছিল কত ছিল যে গান

কত হাসি ছিল কত অভিমান।

সূর্য জ্বলা এই সকাল আমার।

আধারে সবই গেল ঢাকি।।

.

.

এই মনের কথা হয়নি তো বলা

হয়নি তো যো সেই পথে চলা।

স্বপ্ন যে ছিল সবই তোমার দেয়া।

তবে কেন দিলে তুমি ফাঁকি।

আমার সকল নিয়ে বসে আছি

সর্বনাশের আশায়

আমি তার লাগি পথ চেয়ে আছি

পথে যে জন ভাসায়।

.

হৃদয় ছোট, একটু আশা

মজা ভরা মন ভোলানো আশা

আশা করি চাঁদের তারা ছুঁয়ে যাবেন

আকাশে উড়বে আশা করি

হাল ছেড় না

হাল ছেড় না বন্ধু

বরং কন্ঠ ছাড় জোরে

দেখা হবে তোমায় আমায় অন্য গানের ভোরে।

.

দরিয়ায় আইলো তুফান,

আয় কে যাবি রে

হেঁসে হেঁসে যাবি ভেসে, মদিনা নগরে

ধরো হাল শক্ত হাতে..

ভয় কি নদীর সাথে..

টলবে না নৌকা ভীষণ ঝড়ে রে

মিছে তুই একা একা কেন যে আছিস ঘরে

নবীজির ভরসা রেখে চলনা কলম পড়ে

নাম নেবো মোহাম্মদের..

কেটে যাবে ভয় বিপদের

সবার মাঝে তিনি বিরাজ করেন রে..

.

.

বড় আশা করে এসেছি গো

কাছে ডেকে লও

ফিরাইও না জননী।

দিনহীনে কেহ চাহে না

তুমি তারে রাখিবে জানি গো।

আর আমি যে কিছু চাহিনে

চরণও তলে বসে থাকিব,

আর আমি যে কিছু চাহিনে

জননী বলে শুধু ডাকিব ।

আমি আশায় আশায় থাকি।

আমার তৃষিত-আকুল আঁখি॥

.

ঘুমে-জাগরণে-মেশা

প্রাণে স্বপনের নেশা–

দূর দিগন্তে চেয়ে কাহারে ডাকি॥

মেঘ দেখে কেউ করিস নে ভয়

আড়ালে তার সূর্য হাসে।

হারা শশীর হারা হাসি

অন্ধকারেই ফিরে আসে।

দখিন হাওয়ায় অমোঘ বরে

রিক্ত শাখাই পুষ্পে বরে

সিক্ত যে প্রাণ অশ্রুধারায়

প্রাণের প্রিয় তারি পাশে।

Leave a Comment